স্ত্রীকে তালাক দিয়ে অন্তঃসত্ত্বা শ্যালিকাকে বিয়ে

শেয়ার সোশ্যাল মিডিয়া

বার্তাবহ চাঁদপুর ডেস্ক: বরিশা’লের মুলাদীতে ৮ মাস আগে বি’য়ে করা স্ত্রীকে তালাক দেয়ার ৪ দিন’ পর অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী শ্যা’লিকাকে (১৫) বি’য়ে করার অ’ভিযোগ উঠেছে এক ব্য’ক্তির বিরুদ্ধে। ওই উপজে”লার কাজিরচর ইউনিয়’নের উত্তর কাজিরচর গ্রা’মে ঘটে এ’ ঘটনা।

অভিযুক্ত জুয়ে’ল হাওলাদার ওই ‘গ্রামের মৃত খলিল হাওলাদারে’র ছেলে। তার নববিবাহিতা স্ত্রী’ আফসানা আক্তার একই’ উপজেলার কাজি’রচর (খাসেরহাট) মা’ধ্যমিক বিদ্যালয়ের ‘নবম শ্রেণীর শিক্ষা’র্থী।

স্থানীয়রা জা’নায়, গত ৮ মাস আগে জু’য়েল পার্শ্ববর্তী মেহেন্দি’গঞ্জ উপজেলার সন্তোষপুর’ গ্রামের সালাম বেপারীর’ মেয়ে রোকসানা ‘বেগমকে বিয়ে করে।’ গত ২৫ এপ্রিল রোকসানাকে খোলা তালা’ক দেন। এর চারদিনের ব্যবধা’নে স্ত্রীর আপন বোন কি’শোরী আফসানাকে’ বিয়ে ক’রে জুয়ে’ল।

এলাকা’বাসী জানান, বিয়ের পর জুয়েল ‘ও রোকসানার সংসার ভা’লোভাবেই চলছিল। কি’ন্তু বোনের শ্বশুর বাড়িতে যাতায়া’তের সুবাদে রোকসা’নার ছোট বোন ‘আফসানার ওপর দৃষ্টি প’ড়ে জুয়েলের। বিয়ের প্রলোভন ‘দেখিয়ে ‘কিশোরী শ্যালিকা আফ’সানার’ সঙ্গে অ’নৈতিক সম্পর্ক গ’ড়ে তোলেন তি’নি। এর এক পর্যায়ে শ্যালি’কা অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। শ্যালি’কা জুয়েলকে বিয়ের জন্য’ চাপ দেয়। বিয়ে না’ করলে ধর্ষণ মাম’লা করার হুমকি দেয় শ্যালি’কা। মামলা থেকে রক্ষা পে’তে স্ত্রীকে তালাক দি’য়ে শ্যালিকাকে বিয়ে ক’রেন জুয়েল’।

জুয়েল হাওলাদা’র সাংবাদিকদের জানান, সংসারে’ স্ত্রীর সঙ্গে তার বনিবনা হ’চ্ছিল না। কয়েকদিন আ’গে তাকে তালাক দি’য়েছেন। পরে ‘শ্যালি’কা আফসানা’র সম্মতিতে ‘তিনি তাকে দ্বিতীয় বিয়ে’ করেছে’ন।

কাজি’রচর ইউনিয়ন প’রিষদ চেয়ারম্যান মন্টু বিশ্বা’স জানান, জুয়েল স্ত্রীকে’ তালাক দিয়ে তার ছোট বো’নকে বিয়ে খবর তি’নি শুনেছেন’। তবে এ’ ব্যাপারে বি’স্তারিত কিছু জানাতে ‘পারে’ননি তিনি। ‘

এদিকে মুলা’দী থানার ওসি এসএম ‘মাকসুদুর রহমান জানান সাংবাদিক’দের কাছে এ ধরনে’র খবর তিনি শুনে’ছেন। তবে এ ব্যাপা’রে কোনো’ পক্ষ থেকে লিখিত’ কিংবা মৌখিক ‘কোনো অভিযোগ ‘তিনি পাননি। ‘

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *