করোনার আত্মকথা

Spread the love
সাবরিনা আফরোজ

সাবরিনা আফরোজ, স্কুল শিক্ষক।। আমি করোনা। এক অভিশাপের নাম। আমার তান্ডবে আজ সারা পৃথিবী ভয়ে কাঁপছে। মানুষ দিক-বিদিক হারিয়ে যার যার ঘরে লুকাচ্ছে।

আমি করোনা। এক আতংকের নাম। জাতি, ধর্ম, বর্ণের ভেদাভেদ বুঝিনা। যাকে ইচ্ছে খুবলে খেয়ে ফেলি, যন্ত্রণা দেই, তাদের আর্তনাদে আকাশ- বাতাস ভারী হয়ে ওঠে। যার শরীরে প্রবেশ করি তাকে শেষ করতে পিছপা হইনা। সমস্ত শক্তি দিয়ে আঘাত করতে থাকি। আমার আঘাতে কেউ বেঁচে যায় আবার কেউ মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে।

আমার জন্ম চীনের ল্যাবে, নাকি আমি যুক্তরাষ্ট্র বা রাশিয়ার কোন ষড়যন্ত্র, এই নিয়ে বিশ্ববাসী যখন নতুন নতুন বিবাদে জড়ায় আমি তখন নতুন শিকার খুঁজি।

আমি করোনা। এক নিষ্ঠুরতার নাম। আমাকে কেউ হারাতে পারেনি। ট্রাম্প-পুতিনেরা জংগী দমনের নামে সিরিয়া-ইরাকে যে মিসাইল হামলা চালায় আমার কাছে তা হাস্যকর। পারমানবিক অস্ত্র দেখিয়ে অথবা নিরীহ মানুষের উপর হামলার পর হামলা চালিয়ে নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করা রাষ্ট্রগুলো আজ আমাকে হারাতে হিমশিম খাচ্ছে। আমি এক অদৃশ্য শত্রু। ট্রাম্প-পুতিনদের জিজ্ঞেস করতে চাই নিজেদের পারমানবিক অস্ত্রগুলো কেন ব্যবহার করছোনা আমার বিরুদ্ধে? তোমরাও জানো আমাকে হারানো সহজ না, এসব অস্ত্র আমার সামনে খুবই তুচ্ছ। কেননা আমি সবল-দুর্বল দেখে হামলা চালাইনা।

আমার জন্য গরীবেরা আরো গরীব হচ্ছে। সারা পৃথিবী যখন ভয়ে ঘরের কোণায় লুকাচ্ছে গৃহহীন তাকিয়ে থাকছে আকাশের দিকে। আমি ওদের আশেপাশেই থাকি। আমি ওদেরকেও ছাড় দেইনা কেননা মানুষের মাঝে বসবাস করতে করতে দূর্বলের ওপর অত্যাচারটা আরো ভালো করে রপ্ত করে নিয়েছি। তবে, সত্যি বলছি ত্রানের জন্য দীর্ঘক্ষন লাইনে বসে থাকা কাউকে শেষ করে দিতে আমার বুক কাঁপে। আমি ওদের আক্রমণ করতে যেয়েও থমকে যাই, আমার মতো দানবেরও কষ্ট হয় যখন দেখি ওদের অধিকারের চাল চুরি হয়ে যাওয়ায় তিলে তিলে নিঃশেষ হয়ে যাচ্ছে ওরা।

নিষ্ঠুরতাও হার মানে আমার নিষ্ঠুরতার কাছে। তাই গরীব, ধনী, আফ্রিকান-আমেরিকা্ন কাউকে ছাড়িনা আমি। এটাই আমার ধর্ম। কিন্তু আমি মানুষের মতো হতে পারিনা, ঘৃণা লাগে, কেননা দেখেছি আমি, মানুষ হয়েও এরা মানবতার ধর্ম পালন করেনা একেবারেই।

আমি এক রহস্যের নাম। আমি বারবার আসি এই পৃথিবীতে, ভিন্ন নামে, ভিন্ন রুপে। কখনো এইচআইভি, কখনো ইবোলা আবার কখনোবা সার্স হয়ে। আমার রহস্য উদঘাটন করতে করতেই আমি অন্য নাম, অন্য জাত নিয়ে চলে আসি। আমি এক দানব। আমার শেষ নেই। পাপ আর ক্ষমতার মোহে মানুষ অন্ধ পৃথিবীর মানুষকে আমি বুঝিয়ে দেই, কত নগণ্য তোমাদের ক্ষমতা ! আমার মতো অদৃশ্য এক ভাইরাসের কাছেই তোমরা কতটা অসহায়!

এতোকিছুর পরেও বলবো-কেউ ভেবে দেখেনা যে, আমার মতো অশুরের আগমনে মানুষের পাপের পাল্লাটা ধীরে ধীরে হালকা হচ্ছে। ভেবে দেখ- খুন- ধর্ষণ, হানাহানি-মারামারি এই কয়েক মাসে কতটা কমেছে। প্রকৃতি আজ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে। তবুও আমি মানবজাতির ইতিহাসে অন্যতম খলনায়ক। যুগেযুগে মানুষ আমাকে ঘৃণাভরে স্মরণ করবে।

তারপরও আমার মানুষের মতো মহান হতে ইচ্ছে করেনা। এরইমধ্যে, মানুষ হয়ে না জন্মাবার আফসোসটাও মিটে গেছে যখন দেখেছি গর্ভধারিনী মাকে ভয়ে রাস্তায় ফেলে আসছো তোমাদের কেউ, নিজের পিতার লাশ দাফনে অপারগতা জানাচ্ছো কোন সন্তান!

আমি যম, কিন্তু মানুষের এই অ-মনুষ্যত্ব দেখে আমিও ভয় পেয়ে যাই।

আমি করোনা। নতুন শতাব্দীর এক কালো অধ্যায়ের নাম। নিজের এই খল চরিত্র নিয়েও গর্বিত কেননা আমি মানুষ হয়ে জন্মাইনি। তোমরা অন্তত মানুষ হও।

লেখকের ইমেল: sabrina_afroz2000@yahoo.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.