করোনায় ভিন্ন এক ঈদ

Spread the love
মাহবুব হোসেন

মাহবুব হোসেন, সাংবাদিক।। ঈদ শব্দটির অর্থ উৎসব। পবিত্র রমজানে ১ মাস রোজা বা সিয়াম সাধনার পর শাওয়াল মাসের ১ তারিখে খুশী উদযাপন করাই ঈদ। ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরিবেশে সারাদেশে ঈদ উদযাপিত হয়। উৎসবে মেতে যায় পুরো পৃথিবী। ঈদ মুমিনের হৃদয়ে বয়ে আনে অনাবিল এক হাসি। ঈদ মানে মুসলিম জাতিসত্ত্বায় বয়ে যাওয়া খুশির আমেজ। সবার মনে ঈদের সেই চিরায়ত গান “ও মন রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ” গুঞ্জরিত হলেও এবারে তার আবেদন ভিন্ন।

ঈদের দিন গায়ে আতর মেখে মসজিদ অথবা ঈদগাহ মাঠে গিয়ে ঈদের নামাজ আদায়। নামাজ শেষে কোলাকুলি, বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে আড্ডা-ঘোরাঘুরি, পাড়া-প্রতিবেশীদের খোঁজখবর নেয়া- এসবেই মাঝে বাঙালির শান্তি আর আনন্দ। করোনার এই পরিস্থিতি এবারের প্রেক্ষাপট অনেকটা পাল্টে দিয়েছে। এবারের ঈদে আন্তরিকতার সাথে বুকে বুক মিলছে না। যে যার বাসায় উৎসব পালন করছে নিজের মতো করে। প্রতিবেশীদের নিয়েও হচ্ছে না খাওয়া দাওয়া। এমন অনাড়ম্বর ঈদ আর কখনোই আসেনি।

কারণ বৈশ্বিক করোনা মহামারিতে বাঙালির জীবন অবরুদ্ধ। অনেক নিয়মকানুনের বেড়াজালে আটকে এবার ঈদ তাই অন্যরকমের ঈদ হয়ে এসেছে বাঙালির জীবনে।

বাঙালি বিশ্বাস করে করোনার ভয়াবহ কালো থাবায় থমকে যাওয়া পৃথিবী আবারো ফিরে পাবে প্রাণ। সকল অন্ধকার থেকে বেরিয়ে আলোকিত হবে বিশ্ব। আবারো এই উৎসবের দিনে বুকে বুক মিলবে বাঙালির।

লেখকের ইমেইলঃ mahrebon@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.