চাঁদপুর রঘুনাথপুরে অগ্নিকাণ্ডে বসতঘর পুড়ে ছাঁই

Spread the love

বার্তাবহ চাঁদপুর নিউজ: চাঁদপুর শহরের রঘুনাথপুরে ৫ নং ওয়ার্ডের সিআইপি বেড়িবাঁধের পাশে বসতঘর পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। গতকাল ১ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার এই অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

আগুন জ্বলতে থাকো অবস্থ্য় এলাকাবাসী এগিয়ে আসলেও পানি মেরে নেভানোর চেষ্টা করেও নিয়ন্ত্রণ আনতে না পারায় চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস খবর দিলে সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিস গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে এবং নেভাতে সক্ষম হয়।

এদিকে ঘরের মালিক মোঃ কাজল খান( ৫০) জানান, যখন আগুন লেগে যায় তখন আমি বাসায় ছিলাম না আমার ছেলের বউ ও নাতি ছিল আগুন দেখতে পেয়ে তিনি ঘর থেকে বেরিয়ে আসে এবং ডাক-চিৎকার করেন ফ্যানের সাথে আগুন লেগে দাউদাউ করছে সব পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে আমার কিছুই নেই যাহা রাস্তার পাশে একটি ঘর করে বউ পোলাপান নিয়ে থাকতাম সব শেষ হয়ে গেছে। আমার ঘরে থাকা নগদ প্রায় ৫০ হাজার টাকা তিন ভরি স্বর্ণ কালার টিভি ফ্রিজ স্টিলের আলমারি প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ এর কিছুই নেই সব শেষ হয়ে মাটির সাথে মিশে গেছে আল্লাহ ছাড়া আর আমার কেউ নেই।

আগুনের এই দৃশ্য দেখে আমি অজ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে যাই। জ্ঞান ফিরে দেখি ঘরে কিছুই নেই সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে আমি খেটে খাওয়া দিন মজুর শ্রমিক কিভাবে এই ঘর করব বউ পোলাপান নিয়ে থাকবো নেই জমি নেই ঘর রাস্তার পাশে থাকা সেই ঘরটি ও আগুনে পুরে চাই হয়ে মাটির সাথে মিশে গেছে কান্না কন্ঠে তিনি বারবার এ কথাই বলেন।

এদিকে বসতঘরে আগুন লেগেছে খবর পেয়ে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিস ডিপার্টমেন্ট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিভাতে সক্ষম হয়। তবে আগুনটি বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে লাগতে পারে এটি প্রশাসনের ধারণা।এই শুনে চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ গিয়ে তদন্ত করেন। এ বিষয়ে মোঃ আনু বেপারী,লিটন বেপারী কলিম উল্লাহ বেপারী মোঃ এমরান বেপারী. নাজমুল বেপারী জানান, আগুনের অবস্থা দেখে অনেকে ভয় পেয়েছে পানি দিয়ে নিভাইতে অনেকে চেষ্টা করছে কিন্তু পারেনি। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছে।

ঘটনাস্থলে পুলিশ প্রশাসন এসেছে নোট করে নিয়েছে। তবে এলাকার অনেকে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনর কাছে আকুল আবেদন এই পরিবারটি যেন ছেলে সন্তানকে নিয়ে বাঁচতে পারে জেলা প্রশাসক ও সদর ইউএনও একটু সু-নজর দিবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.