বসল পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান

Spread the love

বার্তাবহ চাঁদপুর ডেস্ক: পদ্মায় তীব্র স্রোতের কারণে প্রথম দিন বসানো সম্ভব না হলেও প্রকৌশলীদের প্রচেষ্টায় দ্বিতীয় দিনে পদ্মা সেতুর ‘ওয়ান-ডি’ পিলারের ওপর সফলভাবে বসানো হয়েছে ৩২তম স্প্যান।

আজ ১১ অক্টোবর, রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের মাওয়া প্রান্তের ৪ ও ৫ নম্বর পিলারের ওপর প্রকৌশলীরা স্প্যানটি বসাতে সক্ষম হন। এতে দৃশ্যমান হয়েছে পদ্মা সেতুর চার হাজার ৮০০ মিটার।

পদ্মা সেতু বিভাগ সূত্র জানা যায়, সেতুতে মোট ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানো হবে। ‘ওয়ান ডি’ স্প্যানটি বসে গেলে বাকি থাকবে আরো ৯টি স্প্যান বসানোর কাজ।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, চলতি বছরের ১০ জুন পদ্মা সেতুতে সর্বশেষ ৩১তম স্প্যান বসানো হয়েছিল। করোনা আর বন্যা পরিস্থিতির কারণে সেতুর অন্যান্য কাজ চললেও এরপর আর কোনো স্প্যান বসানো সম্ভব হয়নি।

বন্যা পরিস্থিতি কেটে যাওয়ায় পদ্মায় পানির উচ্চতা কমতে শুরু করেছে। চীন থেকেও ফিরে এসেছেন বিশেষজ্ঞ টিমের সদস্যরা। দীর্ঘ চার মাস পরে সেতুর ৩২তম স্প্যানটি শনিবার বসানোর জন্য চূড়ান্ত প্রস্তুতি নেয় সেতু কর্তৃপক্ষ। শনিবার বিকেলে এটি ভাসমান জাহাজে করে পিলালের কাছে নিয়ে গেলেও সেন্টারিং করে যথাযথ স্থানে নোঙর করা সম্ভব হয়নি বলে স্প্যানটিও পিলারের ওপর তোলা যায়নি।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে দ্বিতল পদ্মা সেতুতে সব মিলিয়ে ৪২টি খুঁটির উপর বসবে ৪১টি স্প্যান। এর মধ্যে ৪০টি খুঁটি থাকবে পানিতে আর ২টি ডাঙায়। ডাঙায় থাকা দু’টি খুঁটি সংযোগ সড়কের সঙ্গে মূল সেতুকে যুক্ত করবে।

বর্তমান সরকারের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী নিজস্ব অর্থায়নে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের দ্বিতল পদ্মা সেতুর পুরোটাই নির্মিত হবে স্টিল ও কংক্রিট কাঠামোতে। সেতুর ওপর থাকবে কংক্রিটিং ঢালাইয়ে চাল লেনের মহাসড়ক আর তার নিচ দিয়ে যাবে রেললাইন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.