যেভাবে ৩০০ কোটির মালিক হলেন গৃহহীন যুবক

Spread the love

বার্তাবহ চাঁদপুর ডেস্ক: রাস্তা’য় রাস্তায় কাজের আশায় ঘু’রতেন তিনি। ছিল না মাথা গোঁজার ঠাঁই। রা’স্তায় কিংবা পার্কের বেঞ্চে’ শুয়েই রাত কাটাতে হতো তাকে। ‘সেই অবস্থা থেকে ঘুরে’ দাঁড়িয়ে আজ তিনি কোটি কো’টি টাকার মালি’ক।

না, কোনো ‘জাদুকাঠির ছোঁয়া নয়, বরং পরিশ্র’ম আর বুদ্ধির জোরেই নিজের’ ভাগ্যের চাকা ঘুরিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের যুবক নিক মকু’টা। ব্রি’টিশ গণমাধ্যম মিরর এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে। ‘

ওই প্রতিবেদ’নে বলা হয়েছে, মাত্র ২১ বছর বয়’সে দাদির দেওয়া ৫০০ ডলার পকে’টে নিয়ে রোমানিয়া থেকে ‘যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন নি’ক। প্রথমে নিক ভেবেছিলেন’, এই অর্থে কিছুদিন হয়তো কেটে যাবে। ‘আর সেই সময়েই মধ্যেই ‘একটা কা’জ জুটিয়ে ‘নেবেন।

কিন্তু অল্প সম’য়েই নিকের ভুল ভেঙে ‘যায়, যখন ট্যাক্সিতে উঠে ১’০০ ডলার ভাড়া হিসেবে মেটাতে’ হয়। ভাল ইংরেজিও তখন ব’লতে পারতেন’ না নিক। দাদির দেও’য়া ৫০০ ডলার থেকে ১০০ ডলার ট্যাক্সি ভাড়া’ দেওয়ার পর হা’তে থাকে মাত্র ৪০০ ডলা’র। সেটা নিয়ে যুক্তরা’ষ্ট্রের রা’স্তায় রাস্তায় কাজের আ’শায় ঘুরতেন তিনি। রাত কাটাতেন রাস্তার ‘ধারে বা পাবলিক পার্কের ‘কোনো বে’ঞ্চে শুয়ে।

এভাবে এ’ক সময় পার্কিং লটে গাড়ি’ রক্ষণাবেক্ষণের কাজ’ পান নিক। তা দিয়ে দিনের খা’বার জুটে যেত। তা’ও আধপেটা। দোকানে ‘গিয়ে বার্গারে চি’জ দিতে নিষেধ করতেন নিক, যাতে বেশি খরচ না হয়’। গাড়ি রক্ষণাবেক্ষণ করতে করতেই ইংরেজি ভাষা ‘ভালোভাবে রপ্ত ক’রেন নিক। রিয়েল এ’স্টেট এজেন্ট হিসেবে লাইসেন্স জোগাড় করে ফেলেন। তাতেও’ খুব বেশি আয় হচ্ছিল না। ২০১৩ সা’লে পরিচিত কয়েকজ’নকে দেখে অনলাইনে ইলে’ক্ট্রনিক সামগ্রী বিক্রি শুরু করেন। আর তাতেই বাজিমাত ‘করেন নিক। প্রথম মাসেই প্রায় ৩ লাখ ড’লার আয় ক’রেন তিনি।

এখন তিনি’ প্রায় তিনশো কোটির মালি’ক নিক। যুক্তরাষ্ট্রে একাধিক ফ্ল্যাট রয়েছে তার। রয়েছে চার’টি বিলাসবহুল গাড়ি। বাড়ি থেকে’ই কাজ করেন আর কোটি কো’টি আয় করেন। ব্যর্থতাকে ভয় না পাওয়া এবং হা’র না মানা মানসিকতাই তাকে এতদূর ‘নিয়ে এসেছে বলে ম’নে করেন ৩৭ বছর বয়সী ‘এই যুবক। ‘

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *