বিছানায় পড়ে ছিল স্বামী-স্ত্রীর হাত-পা বাঁধা লাশ

Spread the love

বার্তাবহ চাঁদপুর ডেস্ক: দিনাজ’পুরের নবাবগঞ্জে স্বামী-স্ত্রীর হাত’-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করেছে’ পুলিশ। নিহতরা হলেন উপ’জেলার নিরসা পলাশবাড়ী এ’লাকার প্রয়া’ত আহাদ আলীর ছেলে হাফিজু’ল ইসলাম (৬৫) ও তাঁর স্ত্রী ফেন্সী বেগম (৫০)। গতকাল ‘শুক্রবার দুপুরে লাশ’ উদ্ধার করা হয়। পু’লিশ তাৎক্ষণিকভা’বে এর কারণ স’ম্পর্কে কিছু জানাতে ‘পারেনি।

পুলিশ সূত্র জানায়, এলাকা’বাসী তাদের খবর দেয়, ‘পলাশবাড়ী এলাকায় স্বামী-স্ত্রীর মর’দেহ বিছানায় পড়ে রয়েছে। এ’লাকাবাসী জানা’য়, হাফিজুল ইস’লাম হজ করেছেন। তাঁর ছে’লেমেয়েরা অন্য জায়গায় ব’সবাস করেন। বাড়িতে ‘স্বামী-স্ত্রী থাকে’ন।

নবাবগঞ্জ ‘থানার ওসি ফেরদৌ’স ওয়াহিদ বলেন, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যা’কাণ্ড। ঘটনাস্থলে’ সিআইডি পুলিশে’র একটি দল’ কা’জ করছে’।

এদিকে কিশো’রগঞ্জের ভৈরবে ঘুমন্ত নবজাতকের রহ’স্যজনক মৃত্যু হয়েছে। একটি বা’লতিতে শিশুটির লাশ ‘পাওয়া গেছে। আ’য়ান নামের ‘ওই নবজাতকের বয়স ‘মাত্র ১৫ দিন। শিশুটি পৌর শহ’রের কালিপুর গ্রামের ইদ্রিস মিয়া ‘ও শাকিলা বেগম দম্পতি’র প্রথম সন্তান। ই’দ্রিস মিয়া’ পেশায় একজ’ন মোবাইল মেকানিক। প’রিবারের দাবি, শুক্রবার সকালে আ’নুমানিক ১১টার শাকিলা বেগম’ নবজাতককে নিয়ে ‘ঘুমিয়ে ছিলেন। একটু পর শি’শুটির দাদি এসে দেখেন, ‘শিশুটি সেখানে নেই। খোঁজাখুঁজি’র এক পর্যায়ে বাল’তির পানিতে ডু’বন্ত অবস্থায় দেখতে ‘পান নবজাতকের চাচা’ দাউদ মিয়া। পরে উপজেলা স্বা’স্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চি’কিৎসক তাকে মৃত’ ঘোষ’ণা করেন।

ভৈরব থা’নার ওসি (অপারেশন) তারিকুল ইস’লাম জানান, এ ঘটনায় লিখিত’ অভিযোগ পাওয়া যা’য়নি। পরিবারের প্রত্যে’ক সদস্য’কেই জিজ্ঞাসাবাদ করা’ হচ্ছে।’

এ ছাড়া পিরো’জপুরের ইন্দুরকানীতে নিখোঁজের ‘পাঁচ দিন পর হাত-পা বিচ্ছি’ন্ন অবস্থায় এক শিশুর লাশ উদ্ধার’ করেছে পুলিশ। শি’শুটির নাম লাবনী আ’ক্তার (৬)। গতকাল শুক্রবার উপজেলার কা’লাইয়া গ্রামের একটি সুপারিবা’গান থেকে লাশ উদ্ধার ক’রা হয়। শিশুটি ওই গ্রা’মের শহিদুল ই’সলাম মৃধার নাতনি। গত ৩১ অক্টোবর ‘নিখোঁজ হয় শিশুটি। এ ঘটনায়’ শিশুটির মা সোনিয়া ‘বেগম থানায় একটি’ সাধারণ ডায়ে’রি করেছেন। ইন্দুরকা’নী থানার ওসি মো. হুমায়ূন কবির ‘ জানান, এ ঘটনার তদন্ত চলছে। জ’ড়িতদের ধরতে’ অভিযান’ চলছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *