যেভাবে আরিয়ানের মাদক পার্টির খবর পায় এনসিবি

Spread the love

বার্তাবহ চাঁদপুর ডেস্ক: মুম্বাই’য়ের একটি প্রমোদত’রীর পার্টিতে মাদক সেবনের অ’ভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন বলি’উড বাদশা শাহরুখ খানের ছেলে’ আরিয়ান খান। প্রায় এক মাস কারা’বাসের পর জামিন পেয়েছেন আরিয়ান। এবার ‘জানা গেল, যেভাবে আরিয়ানের ‘মাদক পার্টির খব’র পেয়েছিল এ’নসিবি।

মহারাষ্ট্রের বি’জেপি নেতা মোহিত কম্বোজ দাবি করেছিলে’ন, আরিয়ানের মামলার মূল’ চক্রান্তকারী সাবেক ‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ঘ’নিষ্ঠ এনসিপি নে’তা সুনীল পাটিল। ভারতীয় সংবাদমা’ধ্যমকে সুনীল জানান, প্রমোদ’তরীতে আরিয়ানের ‘মাদক পা’র্টির’ খবর তাকে জানি’য়েছিলেন বিজে’পি ‘নেতা কৈলাস বিজয়ব’র্গীয়র ঘনি’ষ্ঠ একজ’ন।

জানা গেছে, কৈ’লাস বিজয়বর্গীয়র সেই ‘ঘনিষ্ঠ লোকটি হলো নীরজ ‘যাদব। সুনীলের বক্তব্য কা’র্যত স্বীকার করে নিয়ে’ছেন নীরজ। তি’নি বলে’ন, ‘মনীশ ভানুশালী ও কি’রন গোসাভিকে পার্টির খবর দিয়েছিলে’ন তিনিই। এনসি’বিকে খবর দেন ম’নীশ।’

এদিকে ৩ অক্টো’বর ভারতের নারকোটিকস কন্ট্রো’ল ব্যুরো (এনসিবি) যখন প্রমোদত’রীতে অভিযান চালায়, তখ’ন সেখানে উপস্থি’ত ছিলে’ন সাক্ষী কিরন গোসা’ভি ও বিজেপি কর্মী ম’নীশ ভা’নুশালী।

মনীশকে আগে ‘থেকে চিনলেও কিরন গোসাভিকে চিনতেন না ‘এনসিপি নেতা সুনীল পাটিল। মনীশের বি’রুদ্ধে অভিযোগও করে সুনীলে’র ভাষ্য, ‘আমা’কে জোর করে আটকে রেখে’ছিল মনীশ ভানুশালী। দিল্লির’ হোটেলে মারধর ও হুম’কি দেও’য়া হ’য়েছে।’

অন্যদি’কে বিজেপি নেতা মোহিত কম্বোজ’ বলেছিলেন, ‘১ অক্টোবর স্যাম ডি’সু’জাকে হোয়াটসঅ্যাপে বার্তা ‘পাঠিয়েছিলেন সুনীল পাটি’ল। প্রমোদতরীর পার্টিতে ‘২৭ জন বেআইনি মাদক নিতে চলেছে, সেই তা’লিকা তার কাছে রয়েছে’। নারকোটিকস দপ্তরে’র কারও সঙ্গে যোগা’যোগ করিয়ে দিতে বলে’ন সুনীল। সেই অনুযা’য়ী মাদকবিরোধী সংস্থার অফিসা’র ভিভি সিংয়ের সঙ্গে’ কথা বলেন ডি’’সুজা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.