অর্থের অভাবে চিকিৎসা বঞ্চিত কণ্ঠশিল্পী শারমীন

Spread the love

বার্তাবহ চাঁদপুর ডেস্ক: রিয়েলিটি শোতে চ্যাম্পিয়ন হয়ে লাখো মানুষের মন জয় করেছেন সংগীতশিল্পী শারমীন আক্তার। এরপর কণ্ঠের যাদুতে ধীরে ধীরে দেশ ও দেশের বাইরের লাখো দর্শকের ভালোবাসা পান।

ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন এই কণ্ঠশিল্পী। এখন হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে করুণ সময় কাটছে তার। শারীরিক অবস্থা দিনকে দিন অবনতি হচ্ছে। থাইরয়েড সমস্যা দিয়ে শুরু হলেও এখন শরীরের রক্ত সঞ্চালন ১০ ভাগে নেমে এসেছে। এই মুহূর্তে জীবন মরণের সন্ধিক্ষণে শারমীন। বাবার আহাজারি, মায়ের কান্না পাশেই নিশ্চুপ শুয়ে শুনছে মেয়েটি। চোখে স্বপ্ন, মনে আশা সবই আছে কেবল ভরসা দেয়ার যেন কেউ নেই। অর্থের অভাবে মিলছে না চিকিৎসাও।

কান্না জড়িত কণ্ঠে বাবা হুমায়ুন কবির বলেন, “আমার মেয়েটাকে বাঁচান। দেশবাসীর কাছে দোয়া চাই আমার মেয়ে যেন আগের মতো ভালো হয়ে যায়।”

অসহায় বাবা পেশায় বাউল শিল্পী, নুন আনতে পান্থা ফুরায় অবস্থা। শারমীন গান গেয়ে যে অর্থ পান তা দিয়েই চলতো তাদের সংসার।। মেয়েকে বাঁচাতে নিরূপায় এই অসহায় বাবা তাকিয়ে সহৃদয়বান ব্যক্তিদের সাহায্যের অপেক্ষায়। বাবা হুমায়ুন কবির বলেন, একশোর মধ্যে ৫ শতাংশ বেঁচে থাকার সম্ভাবনা দেখছেন ডাক্তাররা। তারা বলছেন, বর্তমান পরিস্থিতি অনুযায়ী মেয়েকে বাঁচিয়ে তোলার নিশ্চয়তা দিতে পারছেন না।

কথায় আছে দশের লাঠি একের বোঝা। মেয়ের চিকিৎসা করাতে হিমশিম খাচ্ছে তার অস্বচ্ছল বাবা মা। দেশের বিত্তবান সহৃয়বান ব্যক্তিরা তাদের পাশে দাঁড়ালে হয়তো শারমীন সুস্থ হয়ে উঠবে, আবারও কণ্ঠ ছেড়ে গান গাইবে। সবাই এই দুর্দিনে তাদের পাশে দাঁড়াবে এমনটাই প্রত্যাশা।

শারমিন এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নতুন ভবনের ৭ ম তলায় ১৬ নং ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে। শারমিনের বাবার ফোন ফোন এবং বিকাশ নম্বরঃ ০১৭১২১৮৪৮৮৬।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.